Uncategorized

৫০ টাকা বিনিয়োগ করে ফেরত পান ৩৫ লক্ষ টাকা, পোস্ট অফিসের গ্রাম সুরক্ষা যোজনায় বিনিয়োগ করুন

বর্তমানে ভারতে ক্রমাগত হারে মূল্যবৃদ্ধি বাড়ছে। ভারতের সাধারণ মানুষ ব্যাংক কিংবা পোস্ট অফিস যেকোনো ক্ষেত্রে নিজেদের সুবিধামতো বিভিন্নরকম স্কিমে বিনিয়োগের মাধ্যমে এই মূল্যবৃদ্ধি থেকে উদ্ধার পেতে চাইছেন। আর তাই ভারতীয় নাগরিকরা তাদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করার খাতিরে বিভিন্ন ধরনের পলিসি কিংবা স্কিমে বিনিয়োগ করে থাকেন। যার জেরে ভারতের সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখে বিভিন্ন নামজাদা ব্যাংক থেকে শুরু করে ভারতীয় ডাক বিভাগের পক্ষ থেকে নানাপ্রকার পলিসি কিংবা স্কিম কার্যকরী করা হয়ে থাকে, যেগুলিতে অত্যন্ত কম টাকা বিনিয়োগের মাধ্যমে ভারতের জনসাধারণ যথেষ্ট বেশি টাকা রিটার্ন পেতে পারবেন।

তবে যেকোনো ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করলেই তো হলো না, বিনিয়োগের পূর্বে দেখতে হবে যেক্ষেত্রে বিনিয়োগ করবেন তা থেকে নিশ্চিত রিটার্ন পাবেন কিনা কিংবা কতো বছরের জন্য বিনিয়োগ করতে হবে এসমস্ত তথ্যগুলি। আর নাগরিকদের এই সমস্ত চিন্তা থেকে মুক্তি দিতেই ভারতের ডাক বিভাগের তরফে নাগরিকদের জন্য এমন কিছু স্কিম লঞ্চ করা হয়েছে যেগুলিতে নাগরিকরা কোনোরকম ঝুঁকি ছাড়াই বিনিয়োগ করে যথেষ্ট টাকা রিটার্ন পেতে পারবেন।

আর আজ আমরা সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে এমনই একটা স্কিমের হদিশ নিয়ে এসেছি যেখানে আপনারা প্রত্যেকদিন মাত্র ৫০ টাকা বিনিয়োগ করে একেবারে ৩৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত রিটার্ন পেতে পারেন। ভারতীয় ডাক বিভাগের তরফে কার্যকরী এই স্কিমটি গ্রাম সুরক্ষা যোজনা নামে পরিচিত। ভারতীয় জনগণের সুবিধার্থে এই স্কিমটি প্রথম ১৯৯৫ সালে লঞ্চ করা হয়েছিলো। তবে অধিকাংশ মানুষই এখনো পর্যন্ত পোস্ট অফিসের তরফে কার্যকরী এই গ্রাম সুরক্ষা যোজনা সম্পর্কে সঠিকভাবে জানেন না। আর তাই আজকের এই পোস্টে আমরা আপনাদের জন্য এই যোজনা সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য নিয়ে হাজির হয়েছি।

চলুন তবে ভারতীয় ডাক বিভাগের এই গ্রাম সুরক্ষা যোজনা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নেওয়া যাক:-
ভারতীয় ডাক বিভাগের তরফে কার্যকরী এই গ্রাম সুরক্ষা যোজনায় আপনারা ১০,০০০ টাকা থেকে শুরু করে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে প্রিমিয়াম পরিশোধের বিভিন্ন প্রকার উপায় রয়েছে। আপনি মাসিক, ত্রৈমাসিক, অর্ধবার্ষিক এবং বার্ষিক ভিত্তিতে আপনার সুবিধা অনুসারে প্রিমিয়াম দিতে পারবেন। যেকোনো ভারতীয় নাগরিক এই স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারবেন তবে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সেই ব্যক্তির বয়স ১৯ বছর থেকে ৫৫ বছরের মধ্যে হতে হবে।

প্রকাশ হলো নতুন ভোটার তালিকা, বাদ গেল ১২ হাজার নাম, আপনার নাম চেক করুন

স্কিমের অধীনে ভারতীয় নাগরিকরা কি কি সুবিধা পেতে চলেছেন?
১. কোনো ব্যক্তি যদি ১৯ বছর বয়সে এই স্কিমে বিনিয়োগ করেন, তবে তাকে ৫৫ বছর পর্যন্ত প্রতি মাসে ১৫১৫ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। আর এই বিনিয়োগের ফলস্বরূপ ৫৫ বছর প্রত্যেকদিন মাত্র ৫০ টাকা বিনিয়োগ করে তিনি ৩১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা পেয়ে যাবেন।

২. কোনো ব্যক্তি যদি ৫৮ বছর বয়স পর্যন্ত এই স্কিমটির সুবিধার নেন তবে তাকে প্রত্যেক মাসে ১৪৬৩ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। এক্ষেত্রে তিনি পরবর্তীতে ৩৩ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা পেয়ে যাবেন।

৩. গ্রাম সুরক্ষা যোজনা অধীনে কোনো ব্যক্তি যদি ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত বিনিয়োগ করেন তবে তাকে প্রত্যেক মাসে ১৪১১ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। এই ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত বিনিয়োগের ক্ষেত্রে যেকোনো ব্যক্তি ৩৪ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা রিটার্ন পাবেন।

৪. এর পাশাপাশি আপনি যদি কোনোক্ষেত্রে প্রিমিয়াম মিস করেন তবে তা ৩০ দিনের মধ্যে জমা দেওয়ার সুবিধা পাবেন।

৫. গ্রাম সুরক্ষা যোজনার অধীনে কোনো ব্যক্তির ৮০ বছর বয়স পূর্ণ হলে তাকে তার অর্থ ফিরিয়ে দেওয়া হয়। যদি কোনো কারণে ওই ব্যক্তি মারা গিয়ে থাকেন তবে ওই অর্থ তার আইনসম্মত উত্তরাধিকারীকে দেওয়া হয়ে থাকে।

৬. এই স্কিমে বিনিয়োগের ৩ বছর পর আপনি স্কিমটি সারেন্ডার করতে পারেন। যদিও এক্ষেত্রে আপনি কোনোরকম সুবিধা পাবেন না।

৭. গ্রাম সুরক্ষা যোজনার অধীনে আপনারা ঋণ নেওয়ার সুবিধাও পেয়ে যাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button