সরকারি প্রকল্প

রেশন গ্রাহকদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ খবর, বাতিল হতে চলেছে প্রচুর রেশন কার্ড। জেনে নিন বিস্তারিত।

আপনি যদি পশ্চিমবঙ্গের একজন রেশন উপভোক্তা হন তবে এই খবরটি আপনার জন্য। দেশজুড়ে রেশন কার্ড সম্পর্কিত নানানরকম বিতর্ক দানা বাঁধছে বিভিন্ন সময়ে। এরই মধ্যে এলো আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ আপডেট। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে রেশন কার্ড সম্পর্কিত। তা না মানলে বাতিল হতে পারে আপনার রেশন কার্ডটিও।

সাধারণ মানুষের কথা ভেবে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে শুরু করা হয়েছিলো বিনামূল্যে রেশন ব্যবস্থা। বিশেষ করে করোনা অতিমারীর সময়ে যখন দুই বছর লকডাউনে অচলাবস্থা দেখা গিয়েছিলো ভারতে, সেই সময়ে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের কথা মাথায় রেখে তাদের বিপদের হাত থেকে উদ্ধার করার জন্য এই ফ্রী রেশন চালু করা হয়েছিলো। এমন দুর্যোগের সময়ে কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকারগুলি একত্রিত হয়ে ফ্রী রেশনের সুবিধা দিয়েছিলো সাধারণ মানুষকে, তাদের হাতে তুলে দিয়েছিলো ফ্রীতে চাল-গম। সেই সময় ভারতবর্ষের নানা প্রান্তের বহু মানুষ এই ফ্রী রেশন ব্যবস্থার সুবিধা নিয়েছিলো। ফ্রী রেশন ব্যবস্থার ফলে নিঃসন্দেহে উপকৃত হয়েছিলো নানা শ্রেণীর মানুষ।

কিন্তু পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় সরকারের লক্ষ্য করে যে, বেশ কিছু অসাধু ব্যক্তি, যারা কিনা এই ফ্রী রেশন পাওয়ার যোগ্য নন, তারাও সুবিধা নিচ্ছে এই সরকারি প্রকল্প অর্থাৎ ফ্রী রেশন ব্যবস্থার। যার জেরে অনেক ক্ষেত্রেই বঞ্চিত হচ্ছে আসল প্রয়োজনশীল অর্থাৎ যোগ্য মানুষরাই। বহু পদক্ষেপ নিয়েও এই অসাধু ব্যক্তিদের ফ্রী রেশন নেওয়ার হাত থেকে ঠেকানো যায়নি। তাই এবার কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, এই অসাধু ও অযোগ্য ব্যক্তিরা যাতে তাদের রেশন কার্ডটি সারেন্ডার করেন। বিভিন্ন রিপোর্ট অনুযায়ী জানা গিয়েছে, যদি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তারা রেশন কার্ড সারেন্ডার না করেন তাহলে কড়া আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে। বাতিল হয়ে যাবে তাদের রেশন কার্ড।

যেসকল ব্যক্তিরা ফ্রী রেশন পাওয়ার যোগ্য নয় অর্থাৎ ফ্রী রেশনের শর্ত মানছে না, তাদের আর দেওয়া হবে না ফ্রী রেশন।

একধাক্কায় ২০০ টাকা দাম বাড়লো গ্যাস সিলিন্ডারের। মাথায় হাত সাধারণ মানুষের

ফ্রী রেশন পাওয়ার ক্ষেত্রে যে শর্তগুলি রয়েছে সেগুলি হলো:-
(১) যেসব করলে রেশন কার্ড হোল্ডারদের নিজস্ব ইনকাম থেকে অর্জিত ১০০ স্কোয়ার মিটারের জমি কিংবা ফ্ল্যাট/বাড়ি রয়েছে তারা ফ্রী রেশন পাওয়ার যোগ্য নন।

(২) রেশন গ্রাহকের যদি চার চাকার গাড়ি অর্থাৎ ফোর হুইলার কিংবা ট্রাক্টর থাকে তা হলেও তারা পাবে না ফ্রী রেশন।

(৩) গ্রামে বসবাসকারী রেশন কার্ড হোল্ডারদের মধ্যে যাদের বার্ষিক ইনকাম ২ লক্ষ টাকা বা তার বেশি এবং শহরে বসবাসকারী রেশন কার্ড হোল্ডারদের মধ্যে যাদের বার্ষিক ইনকাম ৩ লক্ষ টাকা বা তার বেশি তারাও আর পাবে না ফ্রী রেশন।

(৪) আর্ম লাইসেন্স থাকলেও ফ্রী রেশন পাবেনা সেই রেশন কার্ড হোল্ডার।

এই সকল শর্তগুলি না মেনে যদি কোনো অযোগ্য ও অসাধু ব্যক্তি ফ্রী রেশন নিয়ে থাকেন তাদের অবিলম্বে তহশীল কিংবা ডিএস‌ও অর্থাৎ DSO অফিসে তাদের রেশন কার্ডটি সারেন্ডার করতে হবে। যদি তারা নিজে থেকে রেশন কার্ড সারেন্ডার না করে তবে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রেশন কার্ড ডিলারদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে অযোগ্য রেশন কার্ড ধারীদের তালিকা প্রস্তুত করতে। সেই তালিকায় যাদের নাম থাকবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button