বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে SC/ST/OBC সার্টিফিকেট বের করা তুলনামূলক অনেক সহজ হয়ে গিয়েছে। অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমেই দ্রুত এই সার্টিফিকেট পেয়ে যেতে পারেন। আজকের এই প্রতিযোগিতামূলক যুগে SC/ST/OBC সার্টিফিকেট থাকলে চাকরির পরীক্ষাগুলোতে অসংরক্ষিত প্রার্থীদের তুলনায় আপনাকে কিছু সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হবে যা পরবর্তীতে আপনাকে নিয়োগের ক্ষেত্রে বাড়তি সাহায্য করবে। SC/ST/OBC সার্টিফিকেটের জন্য কীভাবে আবেদন করবেন, কী কী সুবিধা পাবেন নীচে সব বিস্তারিত আলোচনা করা হলো —

• SC/ST/OBC সার্টিফিকেট থাকলে কী কী সুবিধা পাবেন —

(ক) কোনো চাকরির শূন্যপদগুলোতে SC, ST, OBC প্রার্থীদের জন্য অনেক পদ সংরক্ষিত(Reserved) থাকে অর্থাৎ ওই পদগুলোতে শুধুমাত্র সেইসব জাতির মানুষদেরই নিয়োগ করা হবে। জেনারেল ক্যাটাগরির ছেলেমেয়েরা ওই পদগুলোতে চাকরি করতে পারবেন না।

(খ) ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিক্যাল (JEE, NEET সহ আরও অনেক পরীক্ষার ক্ষেত্রে ) প্রভৃতি পরীক্ষায় SC, ST, OBC দের cut অফ UR (Unreserved) দের তুলনায় কম থাকে। ফলে ডাক্তারি, ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজগুলোতে ভর্তির ক্ষেত্রে সুবিধা পাওয়া যায়।

(গ) বিভিন্ন সরকারি চাকরির পরীক্ষাগুলোতেও যেমন- SSC CHSL, SSC CGL, রেলওয়ের পরীক্ষা, স্কুল, কলেজগুলোতে শিক্ষক, অধ্যাপক নিয়োগের পরীক্ষা, এছাড়াও বিভিন্ন ব্যাঙ্কিং পরীক্ষাগুলোতেও কাট অফ কম থাকে। ফলে চাকরিগুলোতে নিয়োগের ক্ষেত্রে কিছুটা সুবিধা পাওয়া যায়।

(ঘ) SC, ST, OBC ছাত্রছাত্রীদের জন্য বিভিন্ন স্কলারশিপের সুবিধা রয়েছে। আমাদের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার কর্তৃক প্রদত্ত বিভিন্ন বৃত্তি প্রদান প্রকল্প যেমন- শিক্ষাশ্রী, ঐক্যশ্রী, ওয়েসিস প্রভৃতি স্কলারশিপ রয়েছে।

(ঙ) বিভিন্ন কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের চাকরির পরীক্ষাগুলোতে অসংরক্ষিত প্রার্থীদের তুলনায় কম আবেদন ফি দিতে হয়।

(চ) সরকারি চাকরির পরীক্ষাগুলোতে বয়সের ছাড় দেওয়া হয়। কোনো চাকরির পরীক্ষায় বসার জন্য SC/ST রা সর্বোচ্চ বয়সসীমার ক্ষেত্রে ৫ বছর ও OBC রা সর্বোচ্চ বয়সসীমার ক্ষেত্রে ৩ বছর ছাড় পান।

(ছ) এছাড়া সেনাবাহিনীর পরীক্ষায় দৈহিক উচ্চতা সহ অন্যান্য শারীরিক শর্তগুলোর ক্ষেত্রেও কিছু ছাড় দেওয়া হয়।

(জ) তপশিলি জাতি, উপজাতি (SC, ST) ও OBC দের জন্য কেন্দ্র ও রাজ্য উভয় সরকারেরই বিভিন্ন সামাজিক জনকল্যাণমূলক প্রকল্প থাকে। পশ্চিমবঙ্গে রাজ্য সরকার কর্তৃক SC, ST, OBC দের জন্য প্রদত্ত তপশিলী বন্ধু পেনশন প্রকল্প, জয় জোহর, খাদ্যসাথী প্রকল্পে (রেশন কার্ডে) বাড়তি কিছু সুবিধা ইত্যাদি সহ অনেক প্রকল্প রয়েছে।


এছাড়াও জাতিগত শংসাপত্র থাকলে আরও অনেক সুযোগ সুবিধা পাওয়া যায় যা আপনাকে এই যুগে কিছুটা হলেও বাড়তি অক্সিজেন জোগাবে।

• কীভাবে অনলাইনেই SC/ST/OBC সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করবেন?

(ক) প্রথমে কাস্ট সার্টিফিকেট সম্পর্কিত বিভিন্ন কাজের জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://castcertificatewb.gov.in/ তে যাবেন।

(খ) এরপরে Citizen’s Corner লেখার নীচে প্রথম অপশন Apply SC/ST/OBC Link 2 তে ক্লিক করুন।

(গ) এবার পরপর
• District (জেলা),
• Sub-Division (মহকুমা),
• Municipality (পৌরসভা) না Block
• পৌরসভা বা ব্লকের নাম
•  SC, ST, OBC এদের মধ্যে যেই সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করতে চাইছেন সেটি
•   Caste/Tribe/Community(আপনি সেই ক্যাটাগরির মধ্যে কোন সম্প্রদায়ে পড়েন সেটি) 
• এরপরে Name(নিজের নাম),
• Father’s Name(বাবার নাম),
• Mobile Number(মোবাইল নম্বর)
• Email ID
•  Document Required অপশনে Epic No. (ভোটার কার্ড ), Adhaar No.(আধার কার্ড নম্বর ), Khadya Sathi No. (ডিজিটাল রেশন কার্ড নম্বর) এদের মধ্যে অন্তত একটি বক্সে সেই কার্ডটির নম্বর 
• Date of Birth (জন্মতারিখ)
• Place of Birth(জন্মস্থান)-
•  State (রাজ্য),
•  District (জেলা),
•  Police Station (থানা),
•  Village/City(গ্রাম/শহর) 

 ★ Present Address for last 6 months (শেষ ছয় মাসের জন্য আপনার বর্তমান ঠিকানা)–এর মধ্যে 

 • C/O Name (অভিভাবকের নাম ) (বাবার নাম লিখতে পারেন)
 •  State ( রাজ্য),
 •  District (জেলা),
•  Police Station (থানা),
•   Ward/GP (ওয়ার্ড /গ্রাম পঞ্চায়েত)
•   Vill/Para/House No./Road (গ্রাম /পাড়া/বাড়ির নং /রাস্তার নম্বর যেকোনো একটি )
•    Post Office (ডাকঘর)
•    Pin Code (পিন নম্বর)


★  Parmanent Address (স্থায়ী ঠিকানা) ও present Address একই হলে Same as Present এ Yes অপশনে ক্লিক করবেন, একই না হলে উপরোক্ত একই পদ্ধতিতে ফিল আপ করবেন।

•    Nationality(Indian সিলেক্ট করাই থাকবে আগে থেকে )
•    Religion (ধর্ম)
•    Gender [লিঙ্গ – Male (পুরুষ), Famale(মহিলা), Others(অন্যান্য)]
•    Blood relation (paternal side) details এ আপনার পরিবারের কারো SC/ST/OBC সার্টিফিকেট থাকলে
a) Certificate holder’s name (তার নাম)
b) Relation with applicant (তার সাথে আপনার রক্তের কী সম্পর্ক)
c)Certificate No. (তার সার্টিফিকেটের নম্বর)
d) Date of Issue (উনার সার্টিফিকেটটি যেই তারিখে Issue করা হয়েছে, দেখবেন উনার সার্টিফিকেটেই তারিখটি লেখা থাকবে)
e)Issuing Authority (কোথা থেকে সার্টিফিকেটটি নেওয়া হয়েছে ) ইত্যাদি সিলেক্ট করবেন
• Details of two(2) local referees (আপনার জায়গার দুজন একই সার্টিফিকেট থাকা সাক্ষীর নাম ও ঠিকানা)
•  যদি আবেদনকারী অন্য কোনো রাজ্য বা দেশ থেকে এই রাজ্যে এসেছেন  তাহলে Whether the applicant or his family migrated from other State/Country? এই অপশনে Yes এ ক্লিক করে তার বিবরণ লিখবেন।

আর আগে থেকেই পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হলে No অপশনে ক্লিক করবেন।
• এবার Save and Continue অপশনে ক্লিক করবেন।
• তাহলে আপনাকে আপনার Application Number(আবেদন পত্রের নম্বর) দিয়ে দেওয়া হবে সেটি লিখে রাখবেন।

এরপরে
• Service details of Father (বাবার কাজ),
• Service details of Mother (মায়ের কাজ)
 সিলেক্ট করে Continue অপশনে ক্লিক করবেন।

[এবার যদি আপনি OBC সার্টিফিকেটের জন্য apply করছেন তাহলে নীচে আরও অপশন আসবে। আপনার বাবা, মায়ের নামে কোনো জমিজায়গা থাকলে জমি সংক্রান্ত তথ্যগুলো পূরণ করবেন। এরপরে বাবা, মা চাকরি করে থাকলে বছরের ইনকাম কত তা বক্সে লিখবেন। যদি কেউ চাকরি না করে থাকে তাহলে আপনার বাবা অথবা মায়ের মধ্যে কেউ কৃষিক্ষেত্রে অর্থ উপার্জন করলে তার পরিমান কিংবা কোনোরকম ইনকাম না করে থাকলে তাহলে ইনকামের বক্সে “০০” লিখলেও ক্ষতি নেই। এবার Save And Continue for OBC অপশনে ক্লিক করবেন]

• Applications Photograph (আবেদনকারীর ছবি) আপলোড করতে হবে। (jpg ফরম্যাটে)

• Caste Identification Documents (আপনার বংশে কারোর জাতিগত শংসাপত্র থাকলে তা আপলোড করতে হবে, Date of Issue (সার্টিফিকেট ইস্যু করার তারিখ), Issuing Authority (কোথা থেকে সার্টিফিকেটটি ইস্যু করা হয়েছে ) সিলেক্ট করতে হবে।

• Document establishing relationship with Applicant এ যার কাস্ট সার্টিফিকেট আপনি আপলোড করলেন তার সাথে আপনার কী সম্পর্ক রয়েছে তা প্রমান করার জন্য Select from the list এ Blood Relationship Chart (রক্তের সম্পর্ক বিষয়ক চার্ট), Migration Certificate,Certificate by Local Authority (স্থানীয় অথরিটি দ্বারা প্রদত্ত সার্টিফিকেট, Voter ID এর চারটির মধ্যে যেকোনো একটি সিলেক্ট করে সেটির নম্বর লিখতে হবে।

• এরপরে Age Proof (বয়সের প্রমাণপত্র) হিসেবে Birth Certificate (জন্ম সার্টিফিকেট), Admit কার্ড (পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড), Adhaar Card (আধার কার্ড) ইত্যাদির মধ্যে যেকোনো একটি সিলেক্ট করে সেটির নম্বর লিখতে হবে।

• এরপরে Photo Identity Proof (ছবির প্রমানপত্র) হিসেবে প্যান কার্ড, অ্যাডমিট কার্ড, ভোটার কার্ড, পাসপোর্ট, আধার কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স এদের মধ্যে যেকোনো একটি সিলেক্ট করে পাশের বক্সে সেই কার্ডটির নম্বর লিখবেন।

• এবার Proof of Citizenship (নাগরিকত্বের প্রমান) হিসেবে জন্ম সার্টিফিকেট, রেশন কার্ড, প্যান কার্ড, কাস্ট সার্টিফিকেট, ভোটার কার্ড ইত্যাদির মধ্যে যেকোনো একটি সিলেক্ট করে Details/No. তে সেটির নম্বর লিখবেন।

• এবার Proof of Residence of West Bengal (পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হিসেবে প্রমানপত্র) এ জন্ম সার্টিফিকেট, কাস্ট সার্টিফিকেট, ভোটার আইডি,স্থানীয় কর্তৃপক্ষ দ্বারা প্রদত্ত সার্টিফিকেট,আধার কার্ড ইত্যাদির মধ্যে যেকোনো একটি সিলেক্ট করে পাশের বক্সে তার নম্বর লিখে দেবেন।

• এবার proof of Local Residence (স্থানীয় বাসিন্দা হিসেবে প্রমান করার জন্য ) হিসেবে জন্ম সার্টিফিকেট, কাস্ট সার্টিফিকেট, ভোটার আইডি,স্থানীয় কর্তৃপক্ষ দ্বারা প্রদত্ত সার্টিফিকেট,আধার কার্ড ইত্যাদি অপশনগুলোর মধ্যে একটি সিলেক্ট করে সেই কার্ডটির নম্বর পাশের বক্সে লিখবেন।

• Income Certificate (ইনকাম সার্টিফিকেট)

• Land Holding Document (জমির মালিকানা সম্পর্কিত সার্টিফিকেট )
সিলেক্ট করবেন।

• এবার Information about Voter ID of অপশনে আবেদনকারীর নিজের ভোটার কার্ড থাকলে Self অপশনে এবং নিজের ভোটার কার্ড না থাকলে Father বা Mother অপশনে ক্লিক করে Voter ID no. অপশনে উক্ত ভোটার কার্ডটির নম্বর লিখতে হবে।

সবশেষে Sumbit অপশনে ক্লিক করবেন। এবার স্ক্রিনে আপনাকে পুনরায় আপনার Application Number (আবেদনপত্রের নম্বর) দেখাবে যেটিকে ভালোভাবে লিখে রাখবেন।

তারপরে সদ্যমাত্র পূরণ করা আবেদনপত্রটি Click here for filled up application form অপশনে ক্লিক করে ডাউনলোড করে নেবেন।

[ আপনি OBC সার্টিফিকেটের জন্য apply করলে পূরণ করা service details ফর্মটিও পরবর্তী লিংকে ক্লিক করে ডাউনলোড করে নেবেন, SC/ST সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করলে এই অপশনটি থাকবে না ]

এরপরে শেষের লিংকে ক্লিক করে Acknowledgement Slip ডাউনলোড করে নেবেন।

এবার এই ডাউনলোড করা স্লিপগুলো প্রিন্ট আউট বের করে যথোপযুক্ত জায়গায় স্বাক্ষর করে তার সাথে পূর্বে উল্লেখিত Document (যেগুলো আপনি সিলেক্ট করেছিলেন) গুলোর জেরক্স একসাথে অ্যাটাচ (Attach) করে আপনার অঞ্চল অফিস বা বিডিও অফিস বা নিকটবর্তী দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে জমা করলেই কিছুদিনের মধ্যে আবেদনকারীর caste certificate (জাতিগত শংসাপত্র) পেয়ে যাবেন।


• Caste certificate এর জন্য আবেদন করার পরে স্ট্যাটাস চেক কী করে করবেন?

(ক) প্রথমে https://castcertificatewb.gov.in/ ওয়েবসাইটে গিয়ে Application Status অপশনে ক্লিক করবেন।

(খ) এবার Application No. অপশনে আপনাকে অনলাইনে সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করার সময় যে Application নম্বরটি দেওয়া হয়েছিলো তা টাইপ করে Search অপশনে ক্লিক করবেন।

(গ) যদি Status এ Approved and awaiting issuance দেখালে আপনার কাস্ট সার্টিফিকেটটি হয়ে গিয়েছে এবং Application Number এর ওখানেই Cert no. এ আপনার কাস্ট সার্টিফিকেটটির নম্বর লেখা থাকবে। আপনি সেটি ভালোভাবে খাতায় লিখে রাখুন।

[যদি স্ট্যাটাসে Application submitted, hardcopy not received,Under Process B.D.O level, Under Process S.D.O level দেখালে আপনার সার্টিফিকেটটি এখনও তৈরী হয়নি। পরবর্তীতে ফের উপরোক্ত পদ্ধতিতে স্ট্যাটাস চেক করবেন। ]

(ঘ) এবার আবার https://castcertificatewb.gov.in/ ওয়েবসাইটের হোম পেজে এসে Certificate Details অপশনে ক্লিক করে New Certificate No. এ ক্লিক করলে আপনার SC/ST/OBC সার্টিফিকেট সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য আপনাকে দেখানো হবে।

(ঙ) এবার সবকাজ হয়ে গেলে আপনার কাস্ট সার্টিফিকেট নম্বরটি নিয়ে B.D.O অফিস বা S.D.O অফিসে গিয়ে আপনার Caste সার্টিফিকেটটি নিয়ে নিতে পারবেন। এছাড়া দুয়ারে সরকার ক্যাম্পেও পূর্বে ঘোষণা করা নির্দিষ্ট দিনে অনেকসময় SC/ST/OBC সার্টিফিকেট দেওয়া হয় সেখান থেকেও আপনার সার্টিফিকেটটি নিয়ে নিতে পারেন।

• অফিসিয়াল ওয়েবসাইট – https://castcertificatewb.gov.in/