চাকরির খবর

Primary TET – প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে জরিমানা দেওয়ার নির্দেশ দিলেন বিচারপতি জাস্টিস গাঙ্গুলি, কারা পাবেন? দেখুন।

বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলির তরফে প্রাথমিক টেট বা Primary TET এর একটি মামলা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ রায় দান কড়া হয়েছে। বিগত ১০ বছর ধরে এই মামলা চলছিল, ২০১৪ সালের টেট পরীক্ষায় ৬ টি ভুল প্রশ্ন আছে বলে মুর্শিদাবাদ জেলার এক পরীক্ষার্থী আদালতে মামলা দায়ের করেন। পরীক্ষায় ৬ নম্বর বেশি দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয় আদালতের তরফে পর্ষদকে। কিন্তু পরীক্ষায় উত্তীর্ণ নম্বর থাকা সত্ত্বেও পর্ষদের তরফে এই পরীক্ষার্থীকে চাকরি না দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

Primary TET Important Update By Kolkata Highcourt.

আর এই মামলা নিয়েই কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলির তরফে WBBPE (West Bengal Board Of Primary Education) বা পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে, ২০২০ সালের নিয়োগ প্রক্রিয়ার অন্তর্গত এই পরীক্ষার্থীকে চাকরিতে নিয়োগ করতে হবে এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে (Primary TET).

এই ৫০ হাজার টাকার মধ্যে ১০ হাজার টাকা চাকরিপ্রার্থীকে এবং ৪০ হাজার টাকা কলকাতা হাইকোর্টে জমা করতে হবে (WB Primary TET) এবং এই প্রার্থীকে সঠিক নিয়ম মেনে চাকরি দেওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিগত কিছু দিন ধরে এই প্রায় ৭০ জনের বেশি প্রার্থীদের চাকরি দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আদালতের তরফে।

এই টেট নিয়ে আমাদের রাজ্যে কলকাতা হাইকোর্টের তরফে ৩৬ হাজার শিক্ষকদের চাকরি বাতিল করে দেওয়া হয়েছিল এবং এই নির্দেশের ওপরে আগামী ২৩ শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের তরফে। এইবারে দেখার অপেক্ষা ভবিষ্যতে ঠিক কি হতে চলেছে। সত্যি যদি এই পুরো প্যানেল বাতিল করে দেওয়া হয়, তাহলে অনেক শিক্ষকের প্রয়োজন পড়বে আমাদের রাজ্যে (WBBPE Primary TET Interview).

School Reopen – গরমের ছুটির পরে সকল শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের মানতে হবে এই সকল নিয়ম, নির্দেশিকা দেখুন।

প্রাথমিক টেটের এই মামলা নিয়ে বাতিল শিক্ষকেরা সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ হয়েছেন। কিন্তু Primary TET নিয়ে এই জট কবে কাটবে সেই নিয়ে চিন্তায় সকলে। কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের তরফে সিঙ্গেল বেঞ্চের রায়কে স্থগিত করেছে আগামী ২৩ শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এবার দেখার অপেক্ষা যে ডিভিশন বেঞ্চের তরফেও এই রায় বহাল রাখা হলে এই ৩২ হাজার বা ৩৬ হাজার শিক্ষকদের কি হতে চলেছে।

PAN Card Rules – কয়েক কোটি প্যান কার্ড গ্রাহকদের জন্য জরুরি নির্দেশ দেওয়া হল সরকারের তরফে।

Related Articles

One Comment

  1. যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে চাকরি ফেরত পাওয়া টাই ভালোহবে, আর যদি সেটা না হয় তাহলে ঐ অযোগ্য শিক্ষক গুলোই থাকে যাবে আর আগামী প্রজন্ম ভুগবে, এই অযোগ্য শিক্ষক দের জন্যেই তাদের ভিত টাই নড়বড়ে হয়ে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button