All-ATM-Cards-are-giving-the-benefits-of-5-lakh-rupees-Find-out-how-to-get-it

আজকের এই ডিজিটাল যুগে প্রায় সকলেরই নিজস্ব ATM কার্ড রয়েছে। এই ATM কার্ড থাকলে নিকটবর্তী ATM মেশিন থেকেই সকলে টাকা তুলতে পারেন। এর জন্য ব্যাংকে যাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। কিন্তু আপনি কী জানেন এই ATM কার্ডের মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৫ লক্ষ টাকা অবধি বীমার সুবিধাও পাওয়া যায়। প্রায় ৯০% গ্রাহকই এই বিষয়টি জানেন না এবং ব্যাংকও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে গ্রাহকদের অবগত করে না। আসলে ATM কার্ড কখনও ব্যাংক নিজে থেকে বানায় না, এই কার্ড গ্রাহকদের দেওয়ার জন্য আলাদা আলাদা কোম্পানি রয়েছে যেমন:- Mastercard, VISA, RuPaY ইত্যাদি। সেইসব কোম্পানিগুলোই আপনার এটিএম কার্ডের সথে বীমার সুবিধাও দিয়ে থাকে। কোনোরকম দুর্ঘটনার কবলে পড়লে আপনি এই বীমার টাকা পেয়ে যেতে পারেন। কিন্তু না জানার কারনে অনেকেই দুর্ঘটনার কবলে পড়েও এই ইন্স্যুরেন্স ক্লেইম করতে পারেন না (ATM Benefits)।

• আপনি কোন ক্ষেত্রে কতো টাকা অবধি বীমা পাবেন?

বীমার টাকার পরিমান আপনার ATM কার্ডের ওপর নির্ভর করে। তবে যদি আপনি দুর্ভাগ্যবশত কোনোরকম দুর্ঘটনার শিকার হন তবেই বীমার টাকা পাবেন। যদি দুর্ঘটনায় আপনার একটি হাত বা একটি পা ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে আপনি ৫০,০০০ টাকা অবধি বীমার টাকা পেতে পারেন। আবার দুর্ঘটনায় যদি আপনার দুটো হাত বা দুটো পা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যায় তাহলে আপনি ১ লক্ষ টাকা অবধি বীমা পেতে পারেন। যদি দুর্ঘটনায় আপনার মৃত্যু ঘটে থাকে তাহলে আপনার নমিনী ২ লক্ষ টাকা থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন। এই টাকার পরিমান ATM কার্ড প্রদানকারী সংস্থাগুলোর ওপরে নির্ভর করে। যেমন:- মাস্টার কার্ডে কোনো ব্যক্তি ৫০,০০০ টাকা, ক্লাসিক এটিএম কার্ডে ১ লক্ষ টাকা, প্ল্যাটিনাম কার্ডে ৫ লক্ষ টাকা অবধি বীমা পেতে পারেন। আবার জনধন যোজনায় নিজের অ্যাকাউন্ট খুলে থাকলে যদি তার সাথে RuPay এর ATM কার্ড থাকে তাহলে আপনি ১ লক্ষ থেকে ২ লক্ষ টাকা অবধি বীমা পেতে পারেন।

রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়ে লাইব্রেরিয়ান নিয়োগ, মাসিক বেতন ৩০ হাজার টাকা

• বীমার টাকা পেতে কী কী ডকুমেন্টস লাগবে?

উক্ত বীমার টাকা পেতে আপনাকে নীচের নথিগুলো লাগবে।

(১) এফআইআরের কপি
(২) হাসপাতালের রিপোর্ট ( যদি আপনি দুর্ঘটনায় আহত হন)
(৩) পোস্টমর্টেম রিপোর্ট ( যদি দুর্ঘটনায় আপনার মৃত্যু ঘটে )
(৪) পুলিশের পঞ্চনামা (যেটি আপনি দুর্ঘটনার পড়লে সহজেই পুলিশ বানিয়ে দেয়)
(৫) নিজের বাইকে পথ দুর্ঘটনার কবলে পড়লে ড্রাইভিং লাইসেন্স, অন্যথায় দরকার নেই

• কীভাবে বীমার টাকা পাবেন?

উপরোক্ত সমস্ত ডকুমেন্টসগুলো নিয়ে আপনার সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে গিয়ে বীমার টাকার জন্য আবেদন করতে হবে। ব্যাংক আপনাকে ATM কার্ড প্রদানকারী সংস্থাগুলোর থেকে এই ইন্স্যুরেন্সের টাকা পেতে সহযোগিতা করবে। সবকিছু ঠিকঠাক ভাবে দিলে আপনি এই বীমার টাকা পেয়ে যাবেন। তবে মনে রাখবেন, দুর্ঘটনার ১ মাসের মধ্যে বীমার টাকা পাওয়ার জন্য আবেদন করতে হবে।