সরকারি প্রকল্প

Bhagyalakshmi Scheme – ভাগ্যলক্ষ্মী প্রকল্পে মেয়েদের টাকা দেওয়া হবে! কিভাবে আবেদন করতে হবে?

রাজ্যের মহিলাদের জন্য বড়ো ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। নতুন ভাগ্যলক্ষ্মী প্রকল্প বা Bhagyalakshmi Scheme অধীনে কন্যা সন্তানের জন্মের পর পিতা মাতাকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করতে চলেছে সরকার। কন্যা সন্তানের ভবিষ্যতের সুরক্ষার্থেই এই প্রকল্পের (New Govt Scheme) ঘোষণা করা হয়েছে জানা গিয়েছে। আর মেয়েদের জন্য এই প্রকল্পের মাধ্যমে দারুণ সুবিধা হতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

Bhagyalakshmi Scheme Online Apply Process.

২০১১ সাল থেকে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর থেকে বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্প চালু করেছেন মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই সকল প্রকল্পের মধ্যে বেশ কিছু প্রকল্প রাজ্যের নাগরিকদের সরাসরি টাকা প্রদান করে থাকে। যেমন কন্যাশ্রী, রুপশ্রী ইত্যাদি। তবে, এই সকল প্রকল্পের মধ্য বিশেষ জনপ্রিয় হল লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্প (Lakshmir Bhandar Scheme).

লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প ২০২৪

আগে এই এর মাধ্যমে রাজ্যের সাধারণ শ্রেণীর মহিলাদের ৫০০ টাকা এবং তপশিলি জাতি ও উপজাতির মহিলাদের ১০০০ টাকা করে দেওয়া হতো। তবে, বর্তমানে সেই টাকার মাত্রা বাড়ানো হয়েছে। এখন রাজ্যের সাধারণ শ্রেণীর মহিলাদের ১০০০ টাকা এবং তপশিলি জাতি ও উপজাতির মহিলাদের ১২০০ টাকা করে দেওয়া হয় লক্ষ্মীর ভান্ডারের মাধ্যমে।

ভাগ্যলক্ষ্মী প্রকল্প ২০২৪

তবে, এবার আরো একবার রাজ্যের মেয়েদের জন্য নতুন প্রকল্প চালু করলেন মুখ্যমন্ত্রী। নতুন এই প্রকল্পের নাম দেওয়া হয়েছে Bhagyalakshmi Scheme. তবে পশ্চিমবঙ্গের শিশু কন্যাদের জন্য এই প্রকল্প নয়। এটি উত্তরপ্রদেশ সরকারের একটি প্রকল্প যা উত্তরপ্রদেশের শিশু কন্যাদের জন্য চালু করা হয়েছে। এই প্রকল্পের অধীনে, সরকার কন্যা সন্তানের জন্মের সময় ৫০ হাজার টাকার বন্ড দেয়, তারপরে কন্যার বয়স ২১ বছর পূর্ণ হলে এই বন্ডটি ২ লাখ টাকার যোগ্য হয়ে যাবে এবং কন্যা সন্তানের জন্মদানকারী মা ৫১০০০ টাকা পাবেন।

Bhagyalakshmi Scheme Allowance

  • ষষ্ঠ শ্রেণীতে প্রাপ্ত পরিমাণ – ৩০০০ টাকা।
  • অষ্টম শ্রেণীতে দেওয়া পরিমাণ – ৫০০০ টাকা।
  • দশম শ্রেণীতে – ৭০০০ টাকা।
  • দ্বাদশ শ্রেণীতে – ৮০০০ টাকা আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে৷

Who will Get Bhagyalakshmi Scheme Benefits

1) এই প্রকল্পের আওতায় একটি পরিবারের মাত্র দুই মেয়েকে সুবিধা দেওয়া হবে।
2) Bhagyalakshmi Scheme অধীনে অংশগ্রহণকারী পরিবারের মাসিক আয় ২০০০০ টাকার কম হতে হবে।
3) এই স্কিমের অধীনে, আবেদনকারীদের মেয়ের জন্মের ৬ মাসের মধ্যে এই স্কিমের সুবিধাগুলির জন্য আবেদন করতে হবে।

4) এই স্কিমের মাধ্যমে সুবিধা গ্রহণকারী পিতামাতাদের কাছে মেয়ের বার্থ সার্টফিকেট এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নথি থাকতে হবে।
5) উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের বাসিন্দাদের জন্য এই প্রকল্প চালু করা হয়েছে তাই আবেদনকারীকে অবশ্যই উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) রাজ্যের বাসিন্দা হতে হবে।

Bhagyalakshmi Scheme Apply Documents

1) পিতা মাতার আধার কার্ড।
2) মেয়ের আধার কার্ড।
3) মেয়ের বার্থ সার্টফিকেট।
4) পিতা মাতার বসবাসের শংসাপত্র।

5) পিতা মাতার আয়ের শংসাপত্র।
6) পিতা মাতার জাত শংসাপত্র।
7) পিতা মাতার চাকরির শংসাপত্র।
8) কন্যার নামে ব্যাংক একাউন্টের বিবরণ ইত্যাদি।

Indian Currency (ভারতীয় মুদ্রা)

Bhagyalakshmi Scheme Online Apply

1) প্রথমে অভিভাবকদের ভাগ্যলক্ষ্মী যোজনার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
2) অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের হোম পেজে, অভিভাবকদের নিউ রেজিস্ট্রেশন বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
3) এরপর নিউ রেজিস্ট্রেশন এবং Bhagyalakshmi Scheme অনলাইন ফর্মের বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।

নতুন গাড়ি ও বাইক কিনলে টাকা দেবে সরকার। কিভাবে আবেদন করতে হবে?

4) এরপর ভাগ্য লক্ষ্মী যোজনা (Bhagyalakshmi Yojana 2024 Online Apply) আবেদনপত্রটি পূরণ করতে হবে এবং প্রয়োজনীয় নথি গুলো স্ক্যান করে আপলোড করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।
5) সাবমিট বোতামে ক্লিক করার সঙ্গে সঙ্গেই, তাঁরা ভাগ্যলক্ষ্মী যোজনার অধীনে আবেদন প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করতে পারবেন। উত্তরপ্রদেশের সরকারের তরফে চালু হওয়া এই নতুন যোজনাতে অত্যন্ত খুশি হয়েছেন উত্তরপ্রদেশের কন্যা সন্তানের অভিভাবকরা।
Written by Sampriti Bose.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button