ওয়েসিস স্কলারশিপ ২০২২-২৩ বর্ষের এর জন্য আবেদন শুরু হয়ে গিয়েছে। আপনিও যদি আবেদন করতে চান তাহলে প্রতিবেদনটি পুরোটা পড়ুন। উল্লেখ্য, ওয়েসিস স্কলারশিপের মাধ্যমে রাজ্য সরকার SC/ST/OBC ক্যাটাগরির ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার জন্য আর্থিক সাহায্য করে থাকে। এই স্কলারশিপ দু’ধরণের হয় –
• প্রি ম্যাট্রিক ওয়েসিস স্কলারশিপ
• পোস্ট ম্যাট্রিক ওয়েসিস স্কলারশিপ

এই স্কলারশিপে কীভাবে আবেদন করবেন, কী কী লাগবে, কারা আবেদন করতে পারবেন তা সম্পর্কে নীচে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করা হলো।

• কারা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন?
° প্রি ম্যাট্রিক ওয়েসিস স্কলারশিপের জন্য

(১) SC অথবা ST ক্যাটাগরির হতে হবে।
(২) পরিবারের বার্ষিক আয় ২ লক্ষের কম হতে হবে।
(৩) নবম-দশম শ্রেণীতে পড়তে হবে।

° পোস্ট ম্যাট্রিক ওয়েসিস স্কলারশিপের জন্য

(১) SC / ST / OBC ক্যাটাগরির হতে হবে।
(২) পরিবারের বার্ষিক আয় আড়াই লক্ষের কম হতে হবে।
(৩) একাদশ শ্রেণী থেকে স্নাতকোত্তর স্তর অবধি ছাত্রছাত্রীরা আবেদন করতে পারবে।


• কীভাবে আবেদন করবেন?
অনলাইনে দুটি ধাপের মাধ্যমে ওয়েসিস স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে হবে –

১) রেজিস্ট্রেশন
২) স্টুডেন্ট লগইন 

• রেজিস্ট্রেশন :-

(১) প্রথমে https://oasis.gov.in/ এই ওয়েবসাইটে গিয়ে STUDENTS CORNER এর মধ্যে Students Registration অপশনে ক্লিক করুন।

(২) এবার নিজের District (জেলা) সিলেক্ট করে Sumbit এ ক্লিক করুন।

(৩) এরপরে Verification of Caste Certificate এ
পরপর 

° Caste Certificate No. (আপনার জাতিগত শংসাপত্রের নম্বর)

° Issuing Date (কবে আপনার সার্টিফিকেটটি ইস্যু করা হয়েছে)

° Select Type
[ কোন ধরনের কাস্ট সার্টিফিকেট, শুধুমাত্র প্রি ম্যাট্রিক স্কলারশিপের জন্য ]

ইত্যাদি সিলেক্ট করে Captcha Code টি হুবহু টাইপ করে Sumbit এ ক্লিক করুন।

(৪) এবারে নিজের Personal Details ( নিজের বাবার /স্বামীর /অভিভাবকের নাম, Gender, কাস্ট, সাব-কাস্ট,জন্মতারিখ, কোর্স টাইপ ইত্যাদি ফিল আপ করবেন।

(৫) এরপরে Authority & Contact Details এ আপনার পরিবারের বার্ষিক ইনকাম, নিজের আধার কার্ড নম্বর, জেলা, ব্লক না মিউনিসিপ্যালিটি, মোবাইল নম্বর ও নিজের ঠিকানা লিখতে হবে।

(৬) এবার Student Class Details এ আবেদনকারী কোন ক্লাসে পড়ছে, কোন সালে পাশ করবে, কোন স্কলারশিপের জন্য আবেদন করছে (প্রি ম্যাট্রিক না পোস্ট ম্যাট্রিক) প্রভৃতি সিলেক্ট করতে হবে।

(৭) এরপরে Password Creation অপশনে এই স্কলারশিপের জন্য একটি পাসওয়ার্ড তৈরী করতে হবে এবং তারপরে নীচে দেওয়া Captcha কোডটি হুবহু টাইপ করে ও নীচের তিনটি Terms & Conditions এ টিক দিয়ে Sumbit অপশনে ক্লিক করবেন।

তাহলেই আপনার রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয়ে যাবে এবং Download Acknowledgment Slip লিঙ্কে ক্লিক করে Acknowledgement স্লিপটি ডাউনলোড করে নেবেন। এই স্লিপের মধ্যে আপনার Application User ID ও পাসওয়ার্ড দেখাবে।

• স্টুডেন্ট লগইন (Login)
(১) এবার পুনরায় ব্যাক করে ওয়েবসাইটের হোম পেজে এসে Students Cornet এর মধ্যে Registered students Login অপশনে ক্লিক করবেন।

(২) এবার নিজের Application ID ও পাসওয়ার্ড লিখে এবং captcha কোডটি হুবহু টাইপ করে Login অপশনে ক্লিক করবেন।

(৩) তাহলে রেজিস্ট্রেশনের সময় ফিল আপ করা তথ্যগুলো পুনরায় দেখাবে। এবারে উপরের বা দিকে তিনটি লাইন বিশিষ্ট symbol এ ক্লিক করে একে একে

(৪) Primary Details of a Student
[নাম, বাবার নাম, লিঙ্গ,কাস্ট, আধার নম্বর ইত্যাদি]

(৫) Contact Details
[ নিজের মোবাইল নম্বর, ইমেল আইডি]

(৬) Caste Certificate Details
[কাস্ট সার্টিফিকেট নম্বর, কত তারিখে ও কোথা ইস্যু করা হয়েছে ইত্যাদি ]

(৭) Present Address Details
[রাজ্য, জেলা, ব্লক না মিউনিসিপ্যালিটি ও তার নাম, পুলিশ স্টেশন,পোস্ট অফিস, পিন কোড ]

(৮) Other Details
[মায়ের নাম, আবেদনকারী বিবাহিত না অবিবাহিত,তার ধর্ম শারীরিক প্রতিবন্ধী কী না, আগে কখনও এই স্কলারশিপ পেয়েছে কিনা, পরিবারের বার্ষিক আয় এবং প্রুফ হিসেবে ইনকাম সার্টিফিকেট ]

(৯) Permanent Address Details
[আপনার স্থায়ী ঠিকানার জেলা, রাজ্য, ব্লক বা মিউনিসিপ্যালিটি, পিন কোড, পোস্ট অফিস ইত্যাদি ]

(১০) Supporter’s Details
[ আপনাকে যিনি পড়াশোনায় সাহায্য করে যেমন বাবা না মা না অন্য কেউ তার নাম, পেশা, ঠিকানা, কত দূর অবধি পড়েছেন ]

(১১) Educational Details
[মাধ্যমিক কোথা থেকে পাশ করেছো, বর্তমানে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়ছো, কী কোর্স করছো, আগের পরীক্ষাতে কত মার্কস ও পার্সেন্টেজ ইত্যাদি ]

এইসব প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো ফিল আপ করে Sumbit এ ক্লিক করবেন।

(১২) এবার Identification Information এ আপনার আধার রয়েছে কিনা, থাকলে আধার কার্ড নম্বর এবং আধার কার্ডটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সাথে লিংক করা আছে কিনা সেইসব সিলেক্ট করে এবং Banking Information এ নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর, IFSC কোড লিখে Save & Proceed এ ক্লিক করবেন।

(১৩) এবার সবশেষে Verify & Lock Application অপশনে ক্লিক করলে pop-up show করবে এবং Yes এ ক্লিক করবে।

তাহলেই ওয়েসিস স্কলারশিপের জন্য অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলো। এবার আবেদনপত্রটির প্রিন্ট আউট নিয়ে নিজের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গিয়ে ভেরিফাই করিয়ে নিতে হবে। তাহলেই কিছুদিনের মধ্যে আপনার অ্যাকাউন্টে ওয়েসিস স্কলারশিপের টাকা ঢুকে যাবে।

• অফিসিয়াল ওয়েবসাইট – https://oasis.gov.in/