চাকরির খবর

WB Teachers – পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষকদের 3 মাসের মধ্যে এই নিয়ম মানতে হবে, জানিয়ে দিলো সরকার।

পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষকরা (WB Teachers) এবারে বেজায় সমস্যায় পরতে চলেছেন সরকারের (Government Of Wesr Bengal) এই সিদ্ধান্তের ফলে। যেই সকল শিক্ষকরা সরকার এর কাছে তাদের ন্যায্য পাওনা দিচ্ছে না বলে চেচাতে থাকেন। নিজের পছন্দ মতো জায়গায় ট্রান্সফার সহ বহু দাবি জানাতে থাকেন। কিন্তু নিজের কর্মের জায়গায় চরম বেআইনি কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষক- শিক্ষিকাদের একাংশ। যা কোনো মতেই বরদাস্ত করা যায় না। আর সেই দিকে নজর দিয়েই রাজ্য সরকারের তরফে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে।

WB Teachers Will Not Teach Private Tuition.

পাশাপাশি, এই বিষয়ে কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court) তরফেও কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এবার সেই সমস্ত অবৈধ কাজের সঙ্গে যে সমস্ত শিক্ষক- শিক্ষিকারা (WB Teachers) যুক্ত রয়েছেন, তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিযোগ্য পদক্ষেপ নিতে চলেছে সরকার। সরকারি স্কুল এবং সরকার পোষিত স্কুলের কর্মরত শিক্ষক- শিক্ষিকাদের প্রাইভেট টিউশন করা (Private Tuition Illegal for School Teachers) বেআইনি।

এখনো শোনা যাচ্ছে, রাজ্যজুড়ে কর্মরত শিক্ষক শিক্ষিকাদের (WB Teachers) একাংশ বহাল তবিয়তে প্রাইভেট টিউশন (Private Tuition) চালিয়ে যাচ্ছেন। এবার তাদের নামের তালিকা তৈরি করা শুরু করেছে রাজ্য সরকার। তারপরেই শুরু হবে কড়া অ্যাকশন। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের (WBBSE – West Bengal Board Of Secondary Education) তরফে ২০১৮ সালে জারি করা নির্দেশ অনুসারে সরকারি স্কুল গুলিতে (Government Schools) কর্মরত শিক্ষক শিক্ষিকারা প্রাইভেট টিউশন করতে পারবেন না।

এই নির্দেশ অমান্য করে কোন শিক্ষক যদি যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হবে। কিন্তু এরপরেও পুরোপুরি সেই ছবি বদলায়নি। প্রাইভেট টিউটর ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের তরফে প্রত্যেক জেলায় প্রাইভেট টিউটরদের নামের তালিকা তৈরি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পাশাপাশি, এই সংগঠনের তরফে রাজ্যের শিক্ষা (West Bengal Education Department) দপ্তরে অভিযোগ জানিয়ে বলা হয়, এখনো সরকারি এবং সরকার পোষিত স্কুলগুলির কর্মরত বহু শিক্ষক শিক্ষিকা (WB Teachers) প্রাইভেট টিউশন চালিয়ে যাচ্ছেন।

WB Teachers বা পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষকদের তালিকা তৈরি কড়া হচ্ছে।

শুধু তাই নয়, পড়ুয়াদের তাদের কাছে প্রাইভেট টিউশন নেওয়ার জন্য চাপ পর্যন্ত তৈরি করা হচ্ছে। এর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে (Calcutta High Court) জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়। সেই মামলার শুনানিতে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ তিন মাসের মধ্যে এই সমস্ত শিক্ষক- শিক্ষিকাদের বিরুদ্ধে রাজ্য সরকারকে পদক্ষেপের নির্দেশ দেয়।

সেই অনুযায়ী সরকারের তরফে ইতিমধ্যেই প্রতিটি জেলায় যে সমস্ত সরকারি স্কুলের কর্মরত শিক্ষক শিক্ষিকারা (WB Teachers) প্রাইভেট টিউশন করছেন, তাদের নামের তালিকা তৈরি করা শুরু হয়েছে। এই সমস্ত শিক্ষক শিক্ষিকাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের ঘোষণা করা হয়েছে। রাজ্য শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে জানা যাচ্ছে, রাজ্যের বিভিন্ন জেলা থেকে যা রিপোর্ট এসেছে।

WB Primary TET (পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক টেট)

সেই রিপোর্টে উত্তর ২৪ পরগনা (North 24 Parganas) জেলায় সরকারি এবং সরকার পোষিত স্কুলগুলির কর্মরত শিক্ষক- শিক্ষিকাদের একাংশের বিরুদ্ধেই বেশি সংখ্যায় প্রাইভেট টিউশন চালানোর অভিযোগ রয়েছে। তাই তাদের নামের তালিকা প্রস্তুত করে কড়া পদক্ষেপের পথেই হাঁটছে রাজ্য সরকার। আগামী ৩ মাসের মধ্যে এই বিষয় নিয়ে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Abhijit Gangopadhyay – শিক্ষকদের 5000 টাকা করে দেওয়ার নির্দেশ দিলেন জাস্টিস গাঙ্গুলি।

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button