Where-you-will-get-more-profit-if-you-keep-money-in-bank-or-post-office-Find-out-now

ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থা মোটেই সন্তোষজনক নয়। দিনের পর দিন ক্রমাগত মূল্যবৃদ্ধি বাড়ছে। আর এই পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিয়োগের মাধ্যমে মূল্যবৃদ্ধি কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছেন। ঝুঁকিহীন মাসিক রিটার্নসহ নিশ্চিত আয়ের বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের প্রথম পছন্দ হলো ব্যাংক কিংবা পোস্ট অফিস। বিশেষত বয়সপ্রাপ্ত সাধারণ নাগরিকদের মধ্যে এই মাসিক পেনশনের প্ল্যানগুলি যথেষ্ট জনপ্রিয়। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিনিয়োগকারীরা দ্বন্দ্বে থাকেন ব্যাংকে বিনিয়োগ করবেন নাকি পোস্ট অফিসে, কোন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ লাভজনক হবে এই সকল বিষয়গুলো নিয়ে। আর তাই আপনাদের এই দ্বন্দ্ব মেটাতে আজ আমরা হাজির হয়েছি স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (SBI) এবং পোস্ট অফিসের দুটি জনপ্রিয় স্কিম নিয়ে। এই পোস্টে আমরা আলোচনা করতে চলেছি কোন ক্ষেত্রে কাদের বিনিয়োগে লাভ বেশি, নূন্যতম কতো টাকা বিনিয়োগ করতে হয়, কতো টাকা রিটার্ন পাওয়া যায় এই স্কিমগুলি থেকে ইত্যাদি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি (Bank Vs Post Office)।

• চলুন তবে এই স্কিম দুটির ব্যাপারে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক:-
১. SBI অ্যানুইটি ডিপোজিট স্কিম:-
স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার এই অ্যানুইটি ডিপোজিট স্কিমে আপনারা এককালীন টাকা জমা করলেই আপনারা মাসে মাসে আয় করতে পারবেন। এটি SBI এর একটি মাসিক আয় স্কিম। এই স্কিমে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার গ্রাহকরা ৩৬ মাস, ৬০ মাস, ৮৪ মাস কিংবা ১২০ মাসের জন্য তাদের আমানত জমা রাখতে পারবেন। অপ্রাপ্তবয়স্করা যদি SBI বার্ষিক আমানত স্কিমের অধীনে অ্যাকাউন্ট খুলতে চান তবে তারা যৌথভাবে তা করতে পারেন। SBI অ্যানুইটি ডিপোজিট স্কিমে সুদের হার কত মাসের মেয়াদের স্কিমে টাকা বিনিয়োগ করা হচ্ছে তার ওপর নির্ভর করে। এই স্কিমে জন সাধারণের জন্য সুদের হার রয়েছে ৫.৪৫ – ৫.৫০ শতাংশ এবং প্রবীণ নাগরিকদের ক্ষেত্রে এই স্কিমে সুদের হার রয়েছে ৫.৯৫ – ৬.৩০ শতাংশ।

এই পদ্ধতিতে গ্যাস বুক করলে পেয়ে যেতে পারেন ১ টি গ্যাস সিলিন্ডার সম্পূর্ন বিনামূল্যে, সম্পূর্ন পদ্ধতি জেনে নিন

এর পাশাপাশি স্কিমের সবথেকে আকর্ষণীয় সুবিধাটি হল এই স্কিমে ঋণ কিংবা ওভারড্রাফ্টের সুবিধা রয়েছে। সেক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্সের ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ পাওয়ার সুবিধা রয়েছে। এর পাশাপাশি ১৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মেয়াদপূরণের পূর্বে আমানত তোলা যাবে না, যদি তোলা হয় তবে গ্রাহকদের জরিমানা দিতে হবে।

২. পোস্ট অফিস মান্থলি ইনকাম স্কিম(MIS):-
১৮ বছর বয়স হলেই যে কোন ব্যক্তি পোস্ট অফিসের মান্থলি ইনকাম স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারবেন। মাত্র হাজার ১০০০ টাকাতেই পোস্ট অফিসে এই মান্থলি ইনকাম স্কিমে অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে। পোস্ট অফিস MIS-এ বিনিয়োগকারীরা একক এবং যৌথ উভয় ধরনের অ্যাকাউন্টই খুলতে পারবেন। একজন বিনিয়োগকারী সর্বোচ্চ ৩ টি অ্যাকাউন্টের অধিকারী হতে পারবেন। এক্ষেত্রে ১০০০ এর গুণিতকে যেকোনো আমানত ডিপোজিট করা যায়, তবে একক অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে বিনিয়োগের সর্বোচ্চ সীমা হল ৪.৫ লক্ষ টাকা।

আপনার আধার কার্ড ভুঁয়ো নয় তো? জেনে নিন মাত্র ১ মিনিটে, বাতিল হচ্ছে প্রায় ৬ লক্ষ ভুয়ো আধার কার্ড

যৌথ অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে বিনিয়োগের সর্বোচ্চ সীমা হলো ৯ লক্ষ টাকা। এই স্কীমটির মেয়াদ মাত্র ৫ বছর, যদিও আরও ৫-৫ বছরের জন্য এই স্কিমের মেয়াদ বৃদ্ধি করা যেতে পারে। পোস্ট অফিসের এই স্কিমে ৬.৬ শতাংশ হারে বার্ষিক সুদ প্রদান করা হয়। এই স্কিমের মেয়াদ ৫ বছর হওয়ায়, ৫ ম বছরের পর থেকে প্রতি মাসে রয়েছে নিশ্চিত আয়ের সুযোগ। তবে এই স্কিমে করের ক্ষেত্রে কোনো ছাড় নেই। এর পাশাপাশি বয়স্ক নাগরিকদের জন্য কোনো অতিরিক্ত সুবিধাও নেই। তবে এই স্কিমেও সময়ের পূর্বে জমাকৃত রাশি তোলা হলে গ্রাহকদের গুনতে হবে জরিমানা।