সরকারি নথি

এবারে ১২০০০ টাকা পাবেন! Ration Card গ্রাহকদের সামনে দারুণ সুযোগ

দেশের রেশন কার্ডধারী ব্যক্তিদের (Ration Card) জন্য এবার বড়ো ঘোষণা। বর্তমানে দেশে রেশন কার্ড গ্রাহকদের সংখ্যা প্রায় ১০০ কোটির কাছাকাছি। আর প্রতিদিন এই সংখ্যা অনেকটাই বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এই বিপুল সংখ্যক গ্রাহকদের জন্য অনেক ধরণের সুবিধা নিয়ে হাজির হয়েছে সরকার। এই প্রকল্পের (Government Scheme) অধীনে রেশন কার্ড থাকলে দেওয়া হবে ১২ হাজার টাকা।

Ration Card Get 12 Thousand Rupees on PM Sauchalay Yojana.

সম্প্রতি সারাদেশ ব্যাপী শেষ হয়েছে লোকসভা ভোট। আর এই লোকসভা ভোটে ফের একবার ভারতের শাসনভার নিজেদের দখলে আনতে পেরেছে বিজেপি সরকার। তৃতীয় বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী পদে দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi). কিন্তু অন্যান্য বারের মতন এইবারের লোকসভা ভোটে জয়লাভ করা এতটাও সহজ ছিল না বিজেপির পক্ষে (Ration Card).

রেশন কার্ড থাকলে ১২০০০ টাকা পাবেন

কারণ বিজেপির সাথে প্রায় সমানতালে লড়াই করেছে ইন্ডিয়া জোটও। তবে, প্রধানমন্ত্রী পদে দায়িত্বভার গ্রহণ করার সাথে সাথেই ভারতবাসীর উন্নয়নের স্বার্থে একাধিক নতুন প্রকল্প নিয়ে এসেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর মধ্যে অন্যতম হলো শৌচালয় প্রকল্প (PM Sauchalay Yojana). মূলত সরকারের পক্ষ থেকে যে সমস্ত সুযোগ সুবিধা নিয়ে আসা হয়, তার বেশিরভাগই আনা হয় দারিদ্র সীমার নিচে থাকা পরিবার গুলির (BPL Ration Card) কথা মাথায় রেখে।

প্রধানমন্ত্রী শৌচালয় যোজনা ২০২৪

আমাদের জীবন যাত্রা সহজ ভাবে কাটানোর জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় একটি বিষয় হলো শৌচালয়। প্রত্যেকটি বাড়িতে একটি সুগঠিত শৌচালয় থাকা বাঞ্ছনীয়। কিন্তু ভারতে এমন অনেক পরিবার আছে যারা আর্থিক সমস্যার কারণে বাড়িতে একটি উপযুক্ত শৌচালয় গঠন করতে পারেনি (Ration Card). এই পরিবার গুলি এখনো পাবলিক টয়লেট ব্যবহার করে থাকেন শৌচকার্য করার জন্য।

Ration Card Holders Get Money from PM Sauchalay Yojana.

অনেক গ্রাম্য এলাকায় তো এখনো মাঠে ঘাটেই সারতে হয় সব কিছু। কিন্তু আর চিন্তা নেই। এই সমস্ত পরিবার গুলির জন্য রয়েছে সুখবর। কেন্দ্রীয় সরকারের শৌচাগার প্রকল্পের অধীনে বাড়ি বাড়ি শৌচাগার তৈরি করে দেওয়া হবে বলেই জানা গিয়েছে (Ration Card). এবার থেকে দেশের আর কোনো পরিবারকে পাবলিক টয়লেট ব্যবহার করতে হবে না বা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশেও সারতে হবে না শৌচকার্য।

শৌচালয় যোজনায় কিভাবে টাকা পাবেন?

যে সমস্ত বাড়িতে শৌচালয় নেই সেই বাড়ি গুলিতে একটি করে শৌচালয় দেওয়া হবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে। সম্প্রতি শৌচালয় প্রকল্প সম্পর্কিত বেশ কিছু তথ্য প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, আর্থিক সাহায্য। মূলত ভারতে যে সমস্ত বাড়িতে এখনো পর্যন্ত শৌচালয় নেই সেই সমস্ত পরিবারকে শৌচালয় তৈরি করার জন্য আর্থিক সাহায্য করবে কেন্দ্রীয় সরকার (Central Government Ration Card). প্রত্যেকটি শৌচালয় পিছু ১২ হাজার টাকা করে ধার্য করেছে কেন্দ্র।

PM Sauchalay Yojana Apply Documents

1) ডিজিটাল রেশন কার্ড (Ration Card).
2) ভোটার কার্ড (Voter ID Card).
3) আধার কার্ড (Aadhaar Card).
4) ব্যাংকের পাস বই (Bank Passbook).
5) মোবাইল নম্বর (Mobile Number).

তবে সব থেকে উল্লেখ যোগ্য বিষয় হলো, যে সমস্ত পরিবারে কোন প্রতিবন্ধী ব্যক্তি রয়েছে অথবা শুধুমাত্র মহিলা সদস্য রয়েছেন অথচ বাড়িতে কোন শৌচালয়ের ব্যবস্থা নেই, তারা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবার জন্য আবেদন করতে পারেন (Ration Card). এছাড়াও এসসি, এসটি, ওবিসি কার্ড থাকলে তারা তো সুযোগ পাবেনই পাশাপাশি বিপিএল তালিকা ভুক্ত পরিবার গুলি এই প্রকল্পের সুবিধা পাবার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবে।

PM Sauchalay Yojana Online Apply

1) প্রথমে ভারত প্রকল্পের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে সিটিজেন কর্নার থেকে অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম ফর আইএইচএইচএল অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।
2) এখানে প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করাতে হবে মোবাইল নম্বর অথবা ইমেল আইডির মাধ্যমে।
3) এরপর, নিউ অ্যাপ্লিকেশন অপশনটিতে ক্লিক করে এপ্লিকেশন ফর্মটি পূরণ করতে হবে।

Electric Bill (পশ্চিমবঙ্গে বিদ্যুতের বিল)

4) যাবতীয় গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উল্লেখ করতে হবে সেই ফর্মে।
5) এছাড়াও, গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র গুলি স্ক্যান করে অনলাইনে আপলোড করতে হবে।
6) তারপর সাবমিট করলেই আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে (Ration Card).
7) আবেদন হওয়ার পর ব্লক বা ডিস্ট্রিক্ট অথরিটির তরফ থেকে বাড়িতে এসে যাচাই করে যাবেন প্রদত্ত তথ্যের সত্যতা।

প্রতিমাসে 1500 টাকা দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার! ডেকে ডেকে আবেদন নেওয়া হচ্ছে

উক্ত সমস্ত তথ্য সত্য প্রমাণিত হলে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে ১২ হাজার টাকা চলে আসবে আবেদনকারীর একাউন্টে। তাই আর দেরি না করে সমস্ত শর্তাবলী মেনে কেন্দ্রীয় সরকারের শৌচাগার প্রকল্পের (PM Sauchalay Yojana Benefits on Ration Card) সুবিধা গ্রহণ করতে আবেদন করা উচিত সকলের।
Written by Sampriti Bose.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button