সরকারি প্রকল্প

New Govt Scheme : প্রতিমাসে 1500 টাকা দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার! ডেকে ডেকে আবেদন নেওয়া হচ্ছে

রাজ্যবাসীর জন্য এবার এসে গেল বড়ো সুখবর। বিশেষ প্রকল্পের (New Govt Scheme for Youth) অধীনে রাজ্যের বাসিন্দাদের মাসে মাসে ১৫০০ টাকা করে দিতে চলেছে রাজ্য সরকার (Government of West Bengal). তবে, প্রকল্পের অধীনে শুধু যে টাকা দেওয়া হচ্ছে তাই নয়। প্রকল্পের সুবিধা দিতে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে যাচ্ছেন সরকারি আধিকারিকেরাও।

Yuvasree Prakalpa New Govt Scheme in West Bengal.

২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার রাজ্যের সাধারণ মানুষের জন্য একাধিক প্রকল্প সূচনা করেছিলেন। প্রতিটি প্রকল্প থেকেই উপকৃত হয়েছেন রাজ্যের সকল স্তরের জন সাধারণ। ছাত্র ছাত্রীদের স্কলারশিপ (Scholarship) থেকে, কৃষকদের সহজে ঋণ দান, গৃহ লক্ষ্মীদের হাতে হাত খরচ তুলে দেওয়া সবটাই করেছে রাজ্য সরকার (Lakshmir Bhandar New Govt Scheme).

পশ্চিমবঙ্গে যুবশ্রী প্রকল্প ২০২৪

তবে বেশ কিছু দিন আগেই রাজ্য সরকারের তরফে এমন একটি প্রকল্পের সূচনা করা হয়েছিল যা কার্যত হইচই ফেলে দেয় সর্বত্র। আর সে প্রকল্পের নাম হলো যুবশ্রী প্রকল্প (Yuvasree Scheme). মূলত ২০১৩ সালে রাজ্যের শ্রম দফতর চালু করে যুবশ্রী প্রকল্প। তখন এই প্রকল্পের নাম ছিল যুব উৎসাহ প্রকল্প (Yuva Utsaha Prakalpa). তারপর থেকে বছরের পর বছর ধরে এই প্রকল্পটি (New Govt Scheme) অগ্রসর হয়।

New Govt Scheme in West Bengal

বর্তমানে রাজ্যে উপযুক্ত কর্ম সংস্থানের অভাব রয়েছে। ফলে বেকার হয়ে রয়েছেন অসংখ্য যুবক যুবতী। কিছু সংস্থায় নিয়োগ হচ্ছে ঠিকই, তবে বেকারদের সংখ্যা হ্রাস পায়নি। তাই যুবক যুবতীদের জন্যই সাহায্যার্থে এই প্রকল্পটি রাজ্যে জনপ্রিয় হয়েছে। এই প্রকল্পের টাকা সরাসরি উপভোক্তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দেওয়া হয়ে থাকে। তবে, এবার এই প্রকল্পের মধ্যেই একটি প্রকল্পের (New Govt Scheme) টাকা দেওয়ার জন্য রীতি মতো ডাকাডাকি শুরু হয়েছে।

যুবশ্রী প্রকল্পের নতুন আবেদন ২০২৪

যুবশ্রী প্রকল্পের টাকা (Yuvashree Prakalpa Enrollment) দেওয়ার জন্য আধিকারিকরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে জিজ্ঞেস করছেন তাদের বাড়ির কেউ এই প্রকল্পের আবেদন করেছিলেন কিনা। অনেকের থেকেই উত্তর মিলছে না, তারা এই ধরনের কোনো প্রকল্পের (New Govt Scheme) আবেদন করেননি আবার বহু বছর আগে করা আবেদন মনে করতে পেরে কেউ কেউ বলছেন হ্যাঁ করেছিলেন। আসলে ওই সকল আবেদন করা আবেদনকারীদের ফোনে না পেয়ে শেষ মেষ আধিকারিকদের বাড়ি বাড়ি যেতে হচ্ছে।

Lakshmir Bhandar (লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নতুন আবেদন)

New Govt Scheme Yuvasree Prakalpa in Employment Bank

গত কয়েক দিন ধরেই এমন ঘটনা ঘটতে দেখা গিয়েছে ঝাড়গ্রামে (Jhargram District). আর এরপরেই ঝাড়গ্রামের এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জের পক্ষ থেকে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়। এমন পদক্ষেপ নেওয়ার পিছনে যে কারণ রয়েছে তা হলো, এই বছর ৭৫৮ জনের নাম উঠেছে চূড়ান্ত তালিকায়। যাদের মধ্যে ৩০৪ জনকে ফোনে পাওয়া গেলেও বাকি ৪৫৪ জনের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

পোস্ট অফিস রেকারিং ডিপোজিট সুদের হার 2024. কত বিনিয়োগে 80 হাজার সুদ?

এমন পরিস্থিতিতে গত ৭ জুলাই ছিল অনলাইনে ফর্ম পূরণের দিন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে যাতে কেউ যুবশ্রী প্রকল্পের (New Govt Scheme) টাকা পেতে বঞ্চিত না হন তার জন্য এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়। এছাড়াও জানা গিয়েছে, এমন ঘটনা বহুবার ঘটেছে এবং ঘটতে দেখা যাচ্ছে। মূলত যে ফোন নম্বর দিয়ে আবেদন করা হয় সেই ফোন নম্বর বাতিল করে দেওয়া অথবা অন্য কোনো কারণ থাকার কারণে যোগাযোগ সম্ভব না হওয়াতেই আধিকারিকরা এরূপ পদক্ষেপ নিয়েছিল বলে জানা গিয়েছে।
Written by Sampriti Bose.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button