সরকারি প্রকল্প

Lakshmir Bhandar : লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে নতুন আবেদন এখন পাড়ায় পাড়ায়! এই নথি থাকলেই হবে

পশ্চিমবঙ্গের অসংখ্য মহিলাদের জন্য লক্ষ্মীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar) নিয়ে এসে গেল বড়ো সুখবর। ফের পাড়ায় পাড়ায় শুরু হচ্ছে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের আবেদন প্রক্রিয়া। এখনো যারা লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য আবেদন করেননি তাদের অতি দ্রুত আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই অর্থাৎ ২০১১ সালের পর থেকেই রাজ্যের নাগরিকদের জন্য তাদের ভালোর কথা ভেবেই একের পর এক নতুন নতুন প্রকল্প চালু হচ্ছে (Government of West Bengal).

Lakshmir Bhandar Scheme New Apply Start Soon.

এই সকল প্রকল্প গুলির মাধ্যমে রাজ্যের বাসিন্দারা নানাভাবে উপকৃত হচ্ছেন। এই প্রকল্প গুলোর দ্বারা রাজ্যের বাসিন্দারা আর্থিক সাহায্য ছাড়াও আরো নানা দিক থেকে লাভবান হবেন। রাজ্য সরকারের চালু করা একাধিক প্রকল্পের মধ্যে অন্যতম একটি প্রকল্প হলো লক্ষ্মীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar). এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতি মাসে বাংলার মহিলাদের একাউন্টে সরাসরি ১০০০ টাকা থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত দেওয়া হয় রাজ্য সরকারের তরফ থেকে।

পাড়ায় পাড়ায় লক্ষ্মীর ভাণ্ডার আবেদন

এই টাকা বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের মা বোনদের হাত খরচের টাকা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেকে আবার সংসার খরচ পর্যন্ত চালান। আগে এই প্রকল্পের অধীনে রাজ্য সাধারণ শ্রেণি মহিলাদের ৫০০ টাকা এবং তপশিলি জাতি ও উপজাতি মহিলাদের হাজার টাকা করে দেওয়া হতো। তবে সেই টাকা এখন বৃদ্ধি করা হয়েছে। বর্তমানে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের (Lakshmir Bhandar) অধীনে সাধারণ শ্রেণীর মহিলাদের ১০০০ টাকা এবং তপশিলি জাতি ও উপজাতির মহিলাদের ১২০০ টাকা করে দেওয়া হয়।

দুয়ারে সরকারে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের আবেদন

তবে রাজ্যে এখনো অনেকেই রয়েছেন যারা লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের (Lakshmir Bhandar) জন্য আবেদন করেননি। এবার তাদের জন্য এসে গেল বড় সুখবর। এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য বর্তমানে দুর্দান্ত একটি সুযোগ আসতে চলেছে সকলের আর সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে পাড়াতে বসেই এবার আবেদন করা যাবে। নিজের এলাকায় থেকেই যাবতীয় সরকারি সুযোগ সুবিধা যাতে সাধারণ মানুষ পেতে পারেন।

পশ্চিমবঙ্গে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প

তার জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার ২০২০ সালের ১ ডিসেম্বর দুয়ারে সরকার কর্মসূচী চালু করেছিলেন। এই কর্মসূচির অংশ হিসাবে নানা এলাকায় ক্যাম্প (Duare Sarkar Camp) করা হয়ে থাকে। আর যে সব এলাকায় এই ক্যাম্প হয় সেখানে সরকারি আধিকারিকরা নিজে গিয়ে সাধারণ নাগরিকদের থেকে নানা প্রকল্পের আবেদন গ্রহণ করে থাকেন আর সেই আবেদনের ভিত্তিতেই আবেদনকারীরা নানান রকম সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকেন (Lakshmir Bhandar).

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তার করা সমস্ত জনহিতকর Lakshmir Bhandar খতিয়ান সাধারণ মানুষদের সামনে তুলে ধরার জন্য ও সাধারণ মানুষদের সরকারি প্রকল্পের সুবিধা করে দেওয়ার জন্য বছরে অন্তত পক্ষে দুইবার থেকে তিনবার দুয়ারে সরকার কর্মসূচী গ্রহণ করার নির্দেশ আগেই দিয়েছেন। সেই অনুযায়ী গত বছর ডিসেম্বর মাসে রাজ্যে শেষবার দুয়ারে সরকারের ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়ে ছিলো। এই বছর লোকসভা ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ায় নতুন বছরে কোন‌ও ক্যাম্প এখন‌ও অবধি হয়নি।

Ration Card (রেশন কার্ড গ্রাহকরা ১২ হাজার টাকা পাবেন)

দুয়ারে সরকার ক্যাম্প কবে থেকে শুরু?

তবে খুব তাড়াতাড়ি দুয়ারে সরকারের ক্যাম্প আয়োজন করা হবে বলেই জানা যাচ্ছে, তবে ঠিক কোন সময় নাগাদ দুয়ারে সরকারের ক্যাম্প আয়োজন করা হবে সেই সম্পর্কে সরকারের তরফ থেকে নির্দিষ্ট করে কোন কিছু বলা হয়নি (Lakshmir Bhandar Scheme). সূত্রের খবর অনুযায়ী, জুলাই মাসের মাঝা মাঝি অথবা শেষের দিকে বা আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহ বা দ্বিতীয় সপ্তাহের দিকে হয়তো নতুন করে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পের আয়োজন করা যেতে পারে।

রাজ্যে বিদ্যুতের বিল বৃদ্ধি নিয়ে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী। কি বললেন তিনি?

এই দুয়ারে সরকারে Lakshmir Bhandar ছাড়াও কন্যাশ্রী, রূপশ্রী থেকে শুরু করে কৃষক বন্ধু প্রকল্পের সুবিধাও পাওয়া যাবে, তাই প্রচুর মানুষ নতুন করে ফর্ম ফিলাপ করে আবেদন করতে পারবেন। তবে, লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে নতুন করে আবেদন করার জন্য আধার কার্ড, ভোটার কার্ড, বাসিন্দা সার্টিফিকেট, স্বাস্থ্য সাথী কার্ড (Swasthya Sathi Card) জেরক্স কপি জমা দিতে হবে আবেদনকারীকে। তবে, এবার কবে থেকে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প শুরু হয় সেটিই এখন দেখার বিষয়।
Written by Sampriti Bose.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button