বিনিয়োগ

Kanyadan Policy – মেয়েদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে LIC দারুণ পদক্ষেপ, আর চিন্তার কারণ নেই!

এখন থেকে মেয়ের ভবিষ্যৎ নিয়ে আর কোনো চিন্তাই করতে হবে না তার অভিভাবককে (LIC Kanyadan Policy). কারণ এলআইসি (Life Insurance Corporation Of India) গ্রাহকদের জন্য এনে দিয়েছে এমন একটি স্কিম। যেই স্কিমে ১২১ টাকা জমিয়ে ২৭ লাখ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন গ্রাহকেরা অর্থাৎ নতুন স্কিমের অধীনে কন্যা সন্তানের ভবিষ্যৎ অনেকটাই সুরক্ষিত হতে চলেছে বলা যায়।

LIC Kanyadan Policy Investment Return And Benefits.

বর্তমানে এলআইসির বিভিন্ন ধরনের পলিসি আমাদের দেশে অত্যন্ত জনপ্রিয়। এই মুহূর্তে ভারতের বৃহত্তম এই বীমা সংস্থার অধীনে একাধিক পলিসি (LIC Policy) রয়েছে। যার দ্বারা বছর বছর উপকৃত হয়ে চলেছেন আমাদের দেশের কোটি কোটি মানুষ। দেশের বৃহত্তম বিমা কোম্পানি এলআইসি শিশুদের এবং বয়স্ক নাগরিকদের জন্য বিভিন্ন স্কিম অফার করে, যা বিশাল তহবিল সংগ্রহে সহায়ক (Kanyadan Policy).

এলআইসি বিশেষ করে মেয়েদের জন্য অনেক পরিকল্পনা করেছে, যা মেয়ের পড়ালেখা থেকে বিয়ে পর্যন্ত টেনশন দূর করতে পারে। সাধারণত ভারতে, একটি মেয়ের জন্মের সঙ্গে সঙ্গে লোকেরা তার শিক্ষা এবং বিবাহ নিয়ে উদ্বিগ্ন হতে শুরু করে। তাই যদি এই তালিকায় কেউ থাকেন, তাহলে এলআইসি Kanyadan Policy এই দুশ্চিন্তা দূর করতে পারে, যা অভিভাবককে তার মেয়ের বিয়েতে অর্থের অভাব অনুভব করতে দেবে না। এই স্কিমের বিশেষত্ব হল এই স্কিমটি শুধুমাত্র মেয়েদের জন্যই তৈরি।

যা LIC Kanyadan Policy নামে পরিচিত। এই পলিসিতে মেয়েদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে টাকা পয়সা জমানো অনেক বেশি নিরাপদ এবং সুরক্ষিত বলেই মনে করা হচ্ছে। এলআইসি কন্যাদান পলিসি শুধুমাত্র মেয়েদের ভবিষ্যতই সুরক্ষিত করতে পারে না, এই স্কিমটি মেয়েদের তাদের বিয়ের অর্থের টানাপোড়েন থেকেও মুক্ত করতে পারেন।

এই স্কিমের নাম অনুসারে, মেয়েটি বিবাহযোগ্য বা পড়াশোনার জন্য দরকার হলে এটি বিশাল তহবিল সরবরাহ করতে পারে। এতে গ্রাহককে প্রতিদিন ১২১ টাকা জমা দিতে হবে অর্থাৎ এই অনুযায়ী প্রতি মাসে মোট ৩৬০০ টাকা জমা দিতে হবে। এই Kanyadan Policy বিনিয়োগের মাধ্যমে, ২৫ বছরের পলিসির মেয়াদপূর্তির মেয়াদ শেষ হলে গ্রাহকেরা ২৭ লক্ষ টাকা এককভাবে পাবেন।

এলআইসি এর এই দারুণ পলিসিটি ১৩ থেকে ২৫ বছরের মেয়াদী মেয়াদের জন্য নেওয়া যেতে পারে। একদিকে, প্রতিদিন ১২১ টাকা সঞ্চয় করে গ্রাহকেরা তার মেয়ের জন্য ২৭ লক্ষ টাকা জোগাড় করতে পারেন, অন্যদিকে, তিনি যদি প্রতিদিন মাত্র ৭৫ টাকা সঞ্চয় করে এই Kanyadan Policy বিনিয়োগ করেন অর্থাৎ প্রতি মাসে প্রায় ২২৫০ টাকা, তাহলে ম্যাচিউরিটির সময় তিনি ১৪ লাখ টাকা পাবেন।

কোনো ব্যক্তি যদি বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়াতে বা কমাতে চান, তাহলে তিনি তার ইচ্ছানুযায়ী তা বাড়াতে বা কমাতে পারেন এবং সেক্ষেত্রে তার ফান্ডও একই ভিত্তিতে পরিবর্তিত হবে। কন্যার জন্য তৈরি এই পরিকল্পনা নেওয়ার বয়স সীমা সম্পর্কে কথা বলতে গেলে, এই Kanyadan Policy সুবিধাভোগীর পিতার বয়স ন্যূনতম ৩০ বছর হতে হবে, যেখানে কন্যার বয়স কমপক্ষে এক বছর হতে হবে।

বিশাল তহবিল জমা করার পাশাপাশি এই এলআইসি প্ল্যানে ট্যাক্স সুবিধাও পাওয়া যায়। এলআইসি Kanyadan Policy আয়কর আইন (Income Tax Rule) ১৯৬১ এর ধারা 80C এর আওতায় আসে, তাই প্রিমিয়াম (LIC Premium) জমাকারীরা ১.৫ লাখ টাকা পর্যন্ত কর ছাড় পেতে পারেন। শুধু তাই নয়, মেয়াদপূর্তির আগে পলিসিধারীর সঙ্গে যদি কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে বা তার অকাল মৃত্যু ঘটে।

Investment Scheme (সঞ্চয় প্রকল্প)

তাহলে এমন পরিস্থিতিতে পরিবারের সদস্যদের ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত দেওয়ার বিধান রয়েছে এবং পরিবারের সদস্যদের প্রিমিয়ামও দিতে হবে না। আর পলিসির মেয়াদ শেষ হলে, নমিনি ব্যক্তিকে সম্পূর্ণ ২৭ লাখ টাকা দেওয়া হবে। তবে, এলআইসি এর Kanyadan Policy নিতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের তার আধার কার্ড বা অন্য কোনও পরিচয় প্রমাণ, আয়ের শংসাপত্র, আবাসিক প্রমাণ, পাসপোর্ট আকারের ছবি, কন্যার জন্ম শংসাপত্র দিতে হবে।

Dream 11 খেলে 2 কোটি টাকা জিতলে কত টাকা ট্যাক্স কাটবে? পকেটে কত পাবেন জানুন

জানা যাচ্ছে, এলআইসির এই Kanyadan Policy স্কিমে আবেদন করার জন্য মেয়ের বয়স হতে হবে কমপক্ষে এক বছর। তবে কন্যা সন্তানের জন্মের পর থেকেই এই স্কিমে টাকা জন্মালে কন্যা সন্তানের ভবিষ্যত নিয়ে আর চিন্তা করতে হবে না অভিভাবকদের। আর এই সম্পর্কে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। সঙ্গে থাকুন এই ধরণের আরও খবরের আপডেট পাওয়ার জন্য।
Written by Sampriti Bose.

5 লাখ টাকা দিচ্ছে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক। সঠিক আবেদন করলেই একাউন্টে টাকা ঢুকবে?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button