বিনিয়োগ

Post Office PPF – মাত্র 500 টাকা জমিয়ে লাখপতি হবেন! নতুন পোস্ট অফিস সেভিংস স্কিম

বিনিয়োগকারীদের জন্য এসে গেল বড়ো খবর। এখন থেকে পোস্ট অফিসের বিশেষ স্কিমে (Post Office PPF) মাসে মাত্র ৫০০ টাকা বিনিয়োগ করে লাখপতি হতে পারবেন বিনিয়োগকারীরা। পাশাপাশি, বিনিয়োগ (India Post Office Investment) প্রক্রিয়া হতে চলেছে সম্পূর্ণ রূপে নিরাপদযোগ্য। বর্তমানে দেশের প্রায় প্রতিটি মানুষেরই ব্যাংক বা পোস্ট অফিসে একাউন্ট (Post Office Account) থাকে। কিন্তু তাদের মধ্যে সবাই যে বিনিয়োগ করেন, তা কিন্তু নয়।

India Post Office PPF Account Interest Rate.

তবে, আবার অনেকেই আছেন, যাঁরা কোথায় বিনিয়োগ করলে ভালো লাভ পাওয়া যাবে, সারাক্ষণ সেটাই খুঁজে চলেছেন। মূলত মুদ্রাস্ফীতির (Inflamation) মাত্রা ক্রমশ বেড়েই চলায় বিনিয়োগকারীদের কাছে বিনিয়োগই একমাত্র পথ। এবার সেই বিনিয়োগকারীদের জন্য পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (Post Office PPF) নামক দুর্দান্ত স্কিম নিয়ে এলো পোস্ট অফিস। পোস্ট অফিসে বিনিয়োগ নিরাপদ থাকে। সঙ্গে থাকে নিশ্চিত রিটার্ন।

পোস্ট অফিস পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড স্কিম (Public Provident Fund)

অর্থ বিনিয়োগ করার জন্য পোস্ট অফিস একটি খুবই নিরাপদ জায়গা এবং এখানে ভালো পরিমান রিটার্নও পাওয়া যায়। এই কারণে এখনো অনেকে শেয়ার বাজারে ঝুঁকি না নিয়ে নিজের টাকা পোস্ট অফিসে বিনিয়োগ করতে বেশি পছন্দ করে। পোস্ট অফিসে বিনিয়োগ (Post Office PPF) করার জন্য একাধিক বিকল্প রয়েছে, যার মধ্যে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড একটি খুবই জনপ্রিয় স্কিম।

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডে বিনিয়োগ (Post Office PPF Investment)

প্রতি আর্থিক বছরে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা থেকে এই স্কিমে বিনিয়োগ শুরু করতে পারবেন বিনিয়োগকারী এবং সর্বোচ্চ ১.৫ লাখ টাকা বিনিয়োগ পর্যন্ত কর ছাড় পাবেন। এই স্কিমের পরিপক্কতার সময় কাল ১৫ বছর এবং পরে আরও ৫ বছর বাড়াতে পারবেন বিনিয়োগকারীরা। পোস্ট অফিসের বিভিন্ন স্কিমের সুদের হার (Post Office PPF Interest Rate) প্রতি তিন মাস অন্তর পরিবর্তন করা হয়। বর্তমানে এই স্কিমে ৭.১০ শতাংশ সুদের হার প্রদান করছে পোস্ট অফিস।

পোস্ট অফিসের পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডে (Post Office PPF) কোনো বিনিয়োগকারী যদি প্রতি মাসে ৫০০ টাকা করে জমা করেন তাহলে বছরে তার ৬০০০ টাকা জমা করা হবে। এই স্কিমের মেয়াদ পূর্ণ হওয়া পর্যন্ত অর্থাৎ ১৫ বছর পর তার জমাকৃত অর্থের পরিমাণ হবে ৯০০০০ টাকা। পোস্ট অফিসের পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড স্কিমের বর্তমান সুদের হার।

৭.১০ শতাংশ বার্ষিক সুদ অনুযায়ী বিনিয়োগকারীর জমাকৃত অর্থের উপর প্রাপ্ত সুদের পরিমাণ হবে ৭২৭২৮ টাকা। এইভাবে পোস্ট অফিসের Public Provident Scheme (PPF) স্কিমে মাসে ৫০০ টাকা করে জমা করলে মেয়াদ পূর্তিতে মোট ১৬২৭২৮ টাকা রিটার্ন পাবেন বিনিয়োগকারী। আর এই স্কিমে (Post Office Scheme) সকল ধরণের মানুষরাই বিনিয়োগ করতে পারবেন।

Post Office PPF Scheme Benefits

1) পোস্ট অফিসের এই স্কিমে একজন বিনিয়োগকারী প্রতি আর্থিক বছরে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ করতে পারেন।
2) প্রতি আর্থিক বছরে ১.৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ পর্যন্ত ধরা 80 C এর অধীনে কর ছাড় পাবেন।
3) বর্তমান সুদের হার অনুযায়ী বার্ষিক ৭.১০ শতাংশ চক্র বৃদ্ধি সুদের সুবিধা পাবেন।

4) বিনিয়োগ শুরু করার ৫ বছর পর বিনিয়োগকারী মোট বিনিয়োগ করা অর্থের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত তুলে নিতে পারবেন।
5) একাউন্টধারী অসুস্থ হয়ে পড়লে অথবা তার সন্তানের উচ্চ শিক্ষার জন্য অকাল প্রত্যাহার করা যাবে, তবে এতে নির্দিষ্ট পরিমাণ চার্জ লাগবে।

Super Bike Loan (স্টেট ব্যাংক সুপার বাইক লোন)

Post Office PPF Investment Process

1) এতে বিনিয়োগ করার জন্য আবেদনকারীকে প্রথমে নিকটবর্তী পোস্ট অফিসে গিয়ে পাব্লিক প্রভিডেন্ট ফান্ড একাউন্ট খুলতে হবে।
2) এর জন্য বিনিয়োগকারীকে প্রথমে নির্দিষ্ট ফর্ম পূরণ করতে হবে এবং প্রয়োজনীয় নথিপত্রের কপি জমা দিতে হবে।

1লা জুন থেকে স্টেট ব্যাংক গ্রাহকরা এই সুবিধা পাবেন না!

উল্লেখ্য, Post Office PPF একাউন্ট খোলার জন্য আবেদনকারীর পরিচয় পত্র, ঠিকানা প্রমাণ পত্র, প্যান কার্ড, পাসপোর্ট সাইজ ফটো এবং নমিনি ফর্ম প্রয়োজন। একাউন্ট খোলার আগে পোস্ট অফিসের কর্মীর কাছ থেকে এই স্কিম সম্পর্কে আরো বিস্তারিত বুঝে নিতে হবে বিনিয়োগকারীকে। তাহলে আর দেরি না করে আপনারা এই স্কিমে বিনিয়োগ শুরু করে দিন।
Written by Sampriti Bose.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button